প্রবন্ধ রচনা : বাংলাদেশের জনসংখ্যা সমস্যা ও তার প্রতিকার

উপস্থাপনা ঃ 

বাংলাদেশ একটি অতি ক্ষুদ্র দরিদ্রতম জনপদ। তুলনামূলকভাবে পৃথিবীর অন্যতম ঘনবসতিপূর্ণ দেশ এ বাংলাদেশ। বাংলাদেশের জনসংখ্যার আধিক্য ও বৃদ্ধির হার আজ এদেশের সকল প্রকার উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের প্রধান অন্তরায়। জনসংখ্যা সমস্যা বাংলাদেশের প্রধান সমস্যা হিসেবে চিহ্নিত। 

বাংলাদেশের বর্তমান জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার অব্যাহত থাকলে আগামী শতাব্দীর শুরুতে বাংলাদেশের লোকসংখ্যা দাঁড়াবে ২০ কোটিতে এবং এত বিপুল জনসংখ্যার চাপ এদেশের পক্ষে সহ্য করা সম্ভব হবে না । ফলে বিপর্যয় অনিবার্য ।

বাংলাদেশের জনসংখ্যা সমস্যা ঃ 

বাংলাদেশ জনসংখ্যার দিক দিয়ে পৃথিবীর অষ্টম দেশ। এই স্বল্প আয়তনের দেশে বর্তমান জনসংখ্যা প্রায় ১৬ কোটি। এদেশে প্রতি বছর ২.৫২% হারে লোক সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। জন্মহার যেভাবে বৃদ্ধি পাচ্ছে তাতে আশংকা করা হচ্ছে যে, এ শতাব্দীর শেষ দিকে দেশের লোকসংখ্যা ২০ কোটিতে দাঁড়াবে। তাই বাংলাদেশে জনসংখ্যা অন্যতম সমস্যা হিসেবে

চিহ্নিত। বাংলাদেশে ম্যালথাস তত্ত্ব : 

জনসংখ্যা সমস্যা নিয়ে বিশ্ববিখ্যাত ইংরেজ অর্থনীতিবিদ টমাস রবার্ট ম্যালথাস একটি তত্ত্ব প্রকাশ করেন। তার মতে, “জনসংখ্যার উপর নিয়ন্ত্রণ আরোপ না করলে জনসংখ্যা খাদ্যোৎপাদনের চেয়ে অনেক দ্রুতগতিতে বৃদ্ধি পায় বলে এমন এক সময় আসে যখন দেশের জনসংখ্যা ও খাদ্যোৎপাদনের ভারসাম্য নষ্ট হয়ে যাবে। ফলে দেশে খাদ্য ঘাটতি বা খাদ্য সমস্যা দেখা দেবে এবং জনসংখ্যার জীবনযাত্রার মান নিচে নেমে যাবে।” ম্যালথাসের এ তত্ত্ব বর্তমানে বাংলাদেশে পরিলক্ষিত হচ্ছে।

আরও পড়ুন :- সড়ক দুর্ঘটনা, কারণ ও তার প্রতিকার - বাংলা প্রবন্ধ রচনা 

জনসংখ্যা সমস্যার কারণ ঃ 

বাংলাদেশে জনসংখ্যা সমস্যার পেছনে বেশকিছু কারণ রয়েছে। চিকিৎসা বিজ্ঞানের প্রভূত উন্নতির ফলে মৃত্যুহার যে হারে কমে গেছে, জন্মহার সে হারে কমেনি। ফলে জন্মমৃত্যুর অসঙ্গতি জনসংখ্যা বৃদ্ধিতে সহায়ক ভূমিকা পালন করছে। অশিক্ষা, অজ্ঞতা, দারিদ্র্য, বাল্যবিবাহ, মহিলাদের কর্মসংস্থানের অভাব প্রভৃতি কারণে জনসংখ্যা ব্যাপক হারে বৃদ্ধি পাচ্ছে । জনসংখ্যা বৃদ্ধির এ হার জনসংখ্যা সমস্যা সৃষ্টি করছে।

জনসংখ্যা সমস্যার প্রভাব ঃ 

দেশের ক্রমবর্ধমান জনসংখ্যার চাপে জীবিকা উপার্জন ও খাদ্য সমস্যা প্রভৃতি ক্ষেত্রে জটিলতার সৃষ্টি হচ্ছে। কৃষিপ্রধান এদেশে জনসংখ্যা সমস্যা আমাদের জীবনে উত্তরোত্তর দুঃখ দুর্দশা বৃদ্ধি করছে। বিভিন্ন পণ্য-সামগ্রী রপ্তানী করে আমাদের যে বৈদেশিক মুদ্রা আয় হয় তা খাদ্য আমদানী করতেই শেষ হয়ে যাবে। অন্যদিকে অতিরিক্ত জনসংখ্যার ফলে ক্রমবর্ধমান বেকারত্ব এদেশের অর্থনীতিকে আরো পঙ্গু করে দিচ্ছে।

জনসংখ্যা সমস্যার সমাধান ঃ 

বাংলাদেশে জনসংখ্যা সমস্যার সমাধানের জন্য বেশ কিছু পন্থা অবলম্বন করতে হবে। এদেশে কৃষি ফলন বাড়িয়ে, শিল্পের প্রসার ঘটিয়ে, ব্যবসা-বাণিজ্যের সম্প্রসারণ করে দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের গতিকে ত্বরান্বিত করতে হবে। দেশে ব্যাপক হারে শিক্ষার বিস্তার ঘটাতে হবে। 

জনগণের সামনে জনসংখ্যা সমস্যার ভয়াবহতা তুলে ধরে সবাইকে সচেতন করে তুলতে হবে। এক্ষেত্রে শুধুমাত্র সরকারের উদ্যোগ যথেষ্ট নয়, সবাইকে আন্তরিকভাবে এগিয়ে আসতে হবে। দেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ও খাদ্য উৎপাদনের সাথে জনসংখ্যার যাতে সঙ্গতি থাকে সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।

উপসংহার : 

ক্রমবর্ধমান জনসংখ্যা বাংলাদেশের প্রধান সমস্যা। দেশের আর্থ-সামাজিক উন্নতির জন্য জনসংখ্যাকে অবশ্যই নিয়ন্ত্রণ করতে হবে এবং বর্তমান জনসংখ্যাকে জনসম্পদে পরিণত করার জন্যে সুষ্ঠু পরিকল্পনা গ্রহণ করতে হবে।

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

শিক্ষাগার ওয়েবসাইটের নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url