শীতকাল - রচনা Class 3, 4, 5

সূচনা: 

শীতকাল ষড়ঋতুর মধ্যে পঞ্চম। হাড়কাঁপানো শীত, হিমেল উত্তুরে বাতাস আর কুয়াশার চাদর নিয়ে আসে এই ঋতু। এ সময় দিন ছোট ও রাত বড় থাকে ।

সময়কাল: 

পৌষ ও মাঘ এই দুই মাস মিলে শীতকাল। হেমন্তকালের পর আসে শীত। অন্য সব ঋতুর মতই শীতকালেরও রয়েছে অনন্য বৈশিষ্ট্য ।

প্রকৃতির রূপ: 

শীতকালে বেশ ঠান্ডা পড়ে। রাতে ঘুমাতে লেপ, কম্বল বা কাঁথা মুড়ি দিতে হয়। ভোরে ও রাতে কুয়াশায় চারদিক ঢেকে যায়। গ্রামে সকালবেলা অনেকে খড় বা শুকনো পাতা পুড়িয়ে আগুন পোহায় ।

সুস্বাদু খাবারের সম্ভার: 

শীতকালে মেলে সুস্বাদু ও পুষ্টিকর সবজির সমারোহ। লাউ, ফুলকপি, বাঁধাকপি, শিম, টমেটো, মুলা, আলু, মটরশুঁটি ইত্যাদি সবজি ও বিভিন্ন শাক প্রচুর পরিমাণে হয় এ সময়। 

আরও পড়ুন :- শীতের সকাল - বাংলা রচনা : Class 3, 4, 5

শীতকালে কমলালেবু, জলপাই ইত্যাদি ফল পাওয়া যায়। নদী, খাল- বিলের পানি কমে অনেক মাছ ধরা পড়ে। এ সময় গাঁদা, ডালিয়া, চন্দ্রমল্লিকা ইত্যাদি রংবেরঙের ফুলে বাগান ভরে যায় ।

শীতের পিঠাপুলি: 

শীতকালে বিশেষ করে গ্রামের ঘরে ঘরে পিঠা- পুলি তৈরির ধুম পড়ে যায়। ভাপা, পুলি, পাটিসাপটাসহ বহু মুখরোচক পিঠা ও খেজুর রসের পায়েস বানানো হয় এ সময় ৷ অসুবিধা: শীতকালে সর্দি-কাশি, জ্বর, নিউমোনিয়া, হাঁপানি ইত্যাদি রোগের প্রাদুর্ভাব দেখা দেয়। শীতের শুষ্ক আবহাওয়া আমাদের ত্বক ও চুলের জন্য ক্ষতিকর।

উপসংহার: 

শীতকাল টাটকা সবজি ও পিঠাপুলিসহ খাবারদাবারের দিক থেকে আনন্দ বয়ে আনে। তবে গরিবদের জন্য এ ঋতু কষ্টের। তাদের সহায়তা করলে সবার জন্যই এ ঋতুটি উপভোগ্য।

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

শিক্ষাগার ওয়েবসাইটের নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url