রচনা : শিল্পী কামরুল হাসান

সূচনা :- 

বাংলাদেশে এমন অনেক গুণী ব্যক্তি আছেন, যাঁরা বিভিন্ন ক্ষেত্রে অসামান্য অবদান রেখে স্মরণীয় ও বরণীয় হয়েছেন । তাঁদের মধ্যে শিল্পি কামরুল হাসান অন্যতম ।

শৈশবকাল :- 

কামরুল হাসানের শৈশবকাল কেটেছে তাঁর নিজ গ্রামে । গ্রামে মডেল স্কুলে তিনি ষষ্ঠ শ্রেণি পর্যন্ত পড়েছেন। এ স্কুলে ছবি আঁকা ও মডেল তৈরির নিয়মিত ক্লাস হতো ।

মিস্টার বেঙ্গল উপাধি লাভ :- 

কামরুল হাসান ছোটবেলা থেকেই ব্যায়াম ও শরীরচর্চা করতেন। ১৯৪৫ সালে আন্তঃবাংলা ব্যায়াম ও শরীরচর্চা প্রতিযোগিতায় প্রথম হয়ে তিনি মিস্টার বেঙ্গল উপাধি লাভ করেন । 

গঠনমূলক কাজে সংশ্লিষ্টতা :- 

কামরুল হাসান দেশের নানা ধরনের গঠনমূলক কাজের সঙ্গে জড়িত ছিলেন । গ্রাফিক্স ডিজাইন ও বইপুস্তক অলংকরণ করে তিনি বিশেষ ক্ষেত্র তৈরি করে গেছেন।

ডিজাইন সেন্টার প্রতিষ্ঠা :- 

কামরুল হাসান ১৯৬০ সালে সরকারের ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প সংস্থায় যোগ দেন । এরপর ডিজাইন সেন্টার নামে একটি নতুন প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলেন।

উপসংহার :- 

শিল্পী কামরুল হাসান অন্যায়ের বিরুদ্ধে ছবি এঁকে প্রতিবাদ করতেন। জীবনের শেষ মুহূর্তেও তিনি প্রতিবাদের ছবি এঁকেছেন। আমরা এ শিল্পীকে চিরদিন স্মরণ করব।

আরও পড়ুন 

বীরশ্রেষ্ঠ নূর মোহাম্মদ শেখ - রচনা

বীর শ্রেষ্ঠ মোস্তফা কামাল - রচনা

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

শিক্ষাগার ওয়েবসাইটের নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url