বাংলাদেশের প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের বর্ণনা দিয়ে বিদেশি বন্ধুর নিকট পত্র

বাংলাদেশের প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের বর্ণনা দিয়ে বিদেশি বন্ধুর নিকট পত্র - ১

এলাহী ভরসা 

শান্তিনগর, ঢাকা 
২২ই মার্চ ২০২৪

প্রিয় আবির,

প্রীতি ও শুভেচ্ছা জেনো। গতকাল তোমার চিঠি পেয়েছি। চিঠিতে তোমার দেশের সুন্দর বর্ণনা দিয়েছ এবং আমাদের দেশের বর্ণনা জানতে চেয়েছ। আমার দেশ সম্পর্কে তোমাকে জানাচ্ছি। 

ছোট্ট সুন্দর, স্বাধীন দেশ আমাদের এই বাংলাদেশ। এর আয়তন ১,৪৭,৫৭০ বর্গকিলোমিটার। জনসংখ্যা প্রায় ১৯ কোটি। এদেশের ওপর দিয়ে বয়ে গেছে অসংখ্য নদীনালা, খাল-বিল ও পুকুর ইত্যাদি। এত বেশি নদী আমাদের জীবনের সঙ্গে নিবিড়ভাবে যুক্ত হয়ে আছে বলেই এদেশটি নদীমাতৃক দেশ। 

দেশের দক্ষিণ দিকে যেন সুনীল চাদর বিছিয়ে রেখেছে বঙ্গোপসাগর। আমাদের দেশ কৃষিপ্রধান। ধান, পাট, গম, ইক্ষু ইত্যাদি এদেশের প্রধান কৃষিজাত ফসল। আমাদের দেশের জাতীয় ফুল শাপলা, জাতীয় ফল কাঁঠাল, জাতীয় পাখি দোয়েল, জাতীয় মাছ ইলিশ।

এদেশের সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য বিষয় হলো— নয়নাভিরাম প্রাকৃতিক দৃশ্য। আঁকাবাঁকা নদী, নদীর বুকে পালতোলা নৌকা, সবুজ ফসলের খেত, ঘন অরণ্য, নীল আকাশে পাখির ডানা মেলে উড়ে বেড়ানো ইত্যাদি মনোমুগ্ধকর দৃশ্য সকলকেই মুগ্ধ করে। সময় হলে একবার এসে দেখে যেও প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের এ লীলা-নিকেতন। আজ আর নয় । তোমার চিঠির প্রত্যাশায় রইলাম ।

ইতি
তোমার বন্ধু
শ্যামল
BY AIRMAIL

FROM
SHYAMAL
2, GULSHAN-1
DHAKA
BANGLADESH
STAMP
TO
ABIR-AL-EHASAN
102, DURBAN
SOUTH AFRICA

আরও পড়ুন :- সুন্দরবনের বর্ণনা দিয়ে বন্ধুর কাছে চিঠি - খাম আঁকা সহ

বাংলাদেশের প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের বর্ণনা দিয়ে বিদেশি বন্ধুর নিকট পত্র - ২

ঢাকা, বাংলাদেশ
১৫, জুলাই, ২০২৪ ইং

প্রিয় লি চেন,

আমার প্রীতি ও শুভেচ্ছা জেনো। গত কয়েকদিন পূর্বে তোমার চিঠি পেয়েছি। তোমার দেশের নিখুঁত ছবি ফুটে ওঠেছে তোমার চিঠিতে। তুমি আমার স্বদেশ সম্পর্কে জানতে চেয়েছ। আমি এ ব্যাপারে খুবই আনন্দিত।

বাংলাদেশ দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার একটি ছোট্ট দেশ। ১৯৭১ সালের স্বাধীনতা যুদ্ধের পর দেশটি স্বাধীন হয়। আয়তন প্রায় ১ লাখ ৪৭ হাজার ৫৭০ বর্গ কিলোমিটার। ছোট্ট এ দেশটির লোকসংখ্যা প্রায় ১৯ কোটি। মোট ৬৪টি জেলা নিয়ে দেশটি গঠিত। বাংলাদেশকে নদীমাতৃক দেশ বলা হয়। প্রচুর নদ-নদী রয়েছে এ দেশে। পদ্মা, মেঘনা, যমুনা, কর্নফুলি প্রধান প্রধান নদী। 

এ দেশের ভূমি খুব উর্বর। ধান, পাট, আখ, আলু, ডাল ও শাকসব্জি প্রচুর পরিমাণে জন্মে। সিলেট ও শ্রীমঙ্গলের পাহাড়ি ঢালে চা উৎপন্ন হয়। এখানকার সবুজ মাঠের শোভা বাস্তবিকই চমৎকার। কক্সবাজারের সমুদ্র সৈকত পৃথিবী বিখ্যাত। এছাড়া সুন্দরবনের দৃশ্য খুবই মনোরম। আমাদের দেশের প্রাকৃতিক দৃশ্য তোমার বেশ ভালো লাগবে ।

আজ আর নয়। সময় সুযোগ করতে পারলে আমাদের দেশটি স্বচক্ষে দেখে যাওয়ার নিমন্ত্রণ রইল।

ইতি
তোমারই বান্ধবী
রুমা 


প্রেরক
রুমা
গুলশান,ঢাকা
বাংলাদেশ
ডাকটিকেট
প্রাপক 
লি চেন
ডারবান
দক্ষিন আফ্রিকা

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

শিক্ষাগার ওয়েবসাইটের নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url