বাংলা প্রবন্ধ রচনা - মোবাইল ফোন । PDF

উপস্থাপনা ঃ 

মানব জীবনে বিজ্ঞানের অবদান বিস্ময়কর ও সীমাহীন। সভ্যতার ক্রমবিকাশে বিজ্ঞান যে অবদান রেখেছে তার তুলনা নেই। বিজ্ঞানের বিস্ময়কর অবদানগুলোর মধ্যে অন্যতম প্রধান অবদান মোবাইল ফোন। মোবাইল ফোন গোটা বিশ্বটাকে যেন হাতের মুঠোয় পুরিয়ে দিয়েছে। 

এটি মানুষের জীবনযাত্রাকে সহজতর করেছে এবং তার তৎপরতাকে ত্বরান্বিত করেছে। মানুষ মোবাইল ফোনের মাধ্যমে প্রয়োজনীয় সংবাদটি মুহূর্তের মধ্যে পেয়ে যাচ্ছে এবং আপনজনের সাথে দূরে বসেও যেন একান্ত ঘরোয়াভাবে কথা বলছে।

মোবাইল ফোন কি? ঃ 

মোবাইল ফোন বেতার, টেলিফোন ও টেলিগ্রামের নতুন সংস্করণ মাত্র। তবে এর সাথে কম্পিউটারের যোগসূত্র রয়েছে। মোবাইল ফোন হাতে বা সাথে রাখার অতিক্ষুদ্র একটি ইলেক্ট্রনিক যন্ত্র, যা বিদ্যুৎ শক্তি চালিত অতিশক্তিমান যন্ত্র । এ যন্ত্রটির সাথে ক্ষুদ্র এন্টেনা সংযুক্ত থাকে, যার শক্তি নিজস্ব নেটওয়ার্কের বাইরে অকার্যকর। মোবাইল ফোনে কথা বলা মাত্র তা নিজস্ব নিটওয়ার্কের অন্য মোবাইলে শোনা যায় এবং অতিসহজে মত বিনিময় ও আদান-প্রদান চলে ।

আরও পড়ুন :-  ইন্টারনেট - বাংলা প্রবন্ধ রচনা 

মোবাইল ফোনের প্রকারভেদ ঃ 

মোবাইল ফোন বিভিন্ন প্রকার হতে পারে। কিছু কিছু মোবাইল ফোন কোম্পানি নিজস্ব নেটওয়ার্কের বাইরে কাজ করে না এবং এগুলোর শক্তিও সীমিত। কিন্তু কিছু কিছু মোবাইল রয়েছে যেগুলোর শক্তি নেটওয়ার্কের বাইরেও বিস্তৃত এবং এগুলো দ্বারা দূরদেশের সাথেও যোগাযোগ করা যায়। তবে এক দেশের মোবাইল নেটওয়ার্কের সাথে অন্য দেশের নেটওয়ার্ক সংযোগ না থাকলে যোগাযোগ রক্ষা করা সম্ভব হয় না। 

প্রতিটি মোবাইল ফোনের একটি নিজস্ব নম্বর ও সিমকার্ড থাকে এবং প্রয়োজনমত এক মোবাইলের সিমকার্ড খুলে অন্য মোবাইলে সংযোজন করা যায় । ইন্টারনেট নেটওয়ার্কের জন্যে কম্পিউটার ও টেলিফোন লাইনের দরকার হয়। কিন্তু মোবাইলের জন্যে তার দরকার হয় না। মোবাইল শুধু নেটওয়ার্কের শক্তিতেই এ কাজ সমাধা করে । এছাড়াও মোবাইল ফোনে সংক্ষিপ্ত সংবাদ, নাম্বার, নাম ঠিকানা ইত্যাদি সংরক্ষণের সীমিত ব্যবস্থা রয়েছে।

উপকারিতা ঃ 

মোবাইল ফোনের উপকারিতা বর্ণনা করে শেষ করা যায় না। মোবাইল ফোনের সাহায্যে মুহূর্তের মধ্যে সংবাদ আদান-প্রদান করা যায়। বিশেষ করে ব্যবসা-বাণিজ্যের ক্ষেত্রে মোবাইল অত্যাবশ্যকীয় ভূমিকা পালন করে। দূর-দূরান্তের যোগাযোগ মোবাইল দ্বারা দ্রুত সম্ভব। তবে উভয় পক্ষের মোবাইল সেট থাকতে হবে। একজনের মোবাইল সেট দ্বারা অন্যজনের সাথে তার মোবাইল সেট না থাকলে কথা বলা সম্ভব নয় । 

আরও পড়ুন :-  কম্পিউটার : বাংলা প্রবন্ধ রচনা - Class 8, 9 এবং SSC | PDF

মোবাইল হাতে রেখে যে কোন স্থানে উপস্থিত হয়ে যে কোন মুহূর্তে কাঙ্ক্ষিতজনের সাথে যোগাযোগ সম্ভব । বিজ্ঞানের অন্যান্য অবদানের মত মোবাইল ফোনও মানুষের জীবনযাত্রাকে এক ধাপ এগিয়ে দিয়েছে। মোবাইল ব্যবহারকারীদের কাছে এর গুরুত্ব এত বেশি যে, এক মুহূর্তও যেন মোবাইল ছাড়া চলে না ।

অপকারিতা ঃ 

মোবাইল ফোনের উপকারিতা যেমন রয়েছে, তার কিছু অপকারিতাও রয়েছে এবং তারা এ মোবাইল সেট তাদের সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে ব্যবহার করে। মোবাইল ফোনের বদৌলতে তারা পুলিশি এ্যাকশনের বাইরে নিরাপদে ঘুরে বেড়ায়। পুলিশি এ্যাকশন শুরু হলে তারা মোবাইলের মাধ্যমে খবর পেয়ে যায় এবং দ্রুত আত্মগোপন করে। 

দেশের শীর্ষ সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজ ও দুষ্কৃতকারীদের ধরতে পুলিশের অপারগতার পিছনে মোবাইল ফোন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। পুলিশের চোখে ধুলো দিয়ে সন্ত্রাসীরা ঘুরে বেড়াচ্ছে এবং পুলিশের নাকের ডগায় থেকে সন্ত্রাসি কর্মকাণ্ড চালিয়ে যাচ্ছে। তবে এলাকা ভিত্তিক মোবাইল নেটওয়ার্ক বন্ধ রেখে সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে পুলিশি তৎপরতা চালানো যেতে পারে ।

উপসংহার ঃ 

মোবাইল ফোন আধুনিক সভ্যতার অত্যাবশ্যকীয় উপকরণ। মোবাইল ফোন আধুনিক জীবনযাত্রার কাঙ্ক্ষিত উপকরণ। বর্তমানে বিজ্ঞানের যুগে মোবাইল ছাড়া স্বচ্ছন্দ জীবন কল্পনাই করা যায় না। মোবাইল সর্বাবস্থায় তার গ্রাহককে আপডেট রাখতে সহায়তা করে । তাই স্বচ্ছন্দ জীবনের জন্য মোবাইল সেট অত্যাবশ্যক। ঐদিন আর বেশি দূরে নয়, যেদিন এ দেশের প্রতিটি মানুষের জীবনের সাথে মোবাইল সেট সম্পৃক্ত হবে।




এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

শিক্ষাগার ওয়েবসাইটের নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url