ভাব সম্প্রসারণ : সবার উপরে মানুষ সত্য তাহার উপরে নাই (২টি)

সবার উপরে মানুষ সত্য তাহার উপরে নাই ভাব সম্প্রসারণ - ১

মূলভাব : মহান আল্লাহর সৃষ্টি এ পৃথিবীতে যা কিছু  আছে সবকিছুর ঊর্ধ্বে হলো  মানবজাতি।

সম্প্রসারিত ভাব : মানুষ সৃষ্টির সেরা জীব। দেহ-মনে প্রাণে মানুষ অপূর্ব। মহান আল্লাহ তায়ালা এ মানব জাতিকে জ্ঞান, বুদ্ধি, বিবেক দিয়ে সবচেয়ে সুন্দর করে সৃষ্টি করেছেন। মানুষ অদম্য অপরিসীম ইচ্ছাশক্তির অধিকারী। মানুষ বুদ্ধিবলে জল-স্থল-অন্তরীক্ষে স্বীয় বিজয় পতাকা উড্ডীন করেছে। মানুষের শক্তি জ্ঞান ও কর্মের সীমানা অফুরান। তবে শক্তির দম্ভে মানুষ যদি তার স্বীয় কর্তব্য ভুলে দরিদ্র ভাগ্যাহত মানুষকে তুচ্ছ জ্ঞান করে, তাহলে সে দাম্ভিক এবং অপরিণামদর্শীর ওপর স্রষ্টার অভিশাপ নেমে আসবে। মানুষই মানুষের সুখ দুঃখের সাথী। মানুষের চোখের পানি মুছিয়ে দিতে মানুষই পালন করবে অগ্রণী ভূমিকা। প্রত্যেক মানুষে স্রষ্টা বিরাজমান। শক্তি, সামর্থ্য, বিদ্যা বুদ্ধিতে সব মানুষ সমান না হলেও মানুষের সাথে ব্যবহারের সময় স্মরণ রাখতে হবে মানুষে মানুষে কোনো ভেদাভেদ নেই।

মন্তব্য : মানুষ ‘আশরাফুল মাখলুকাত' অর্থাৎ সৃষ্টির সেরা । তাই সৃষ্টির যে দিকেই তাকাই না কেন, মানুষের চেয়ে শ্রেষ্ঠ কিছুই দেখি না।

আরও পড়ুন :- ঘুমিয়ে আছে শিশুর পিতা সব শিশুরই অন্তরে ভাবসম্প্রসারণ - ৩টি 

সবার উপরে মানুষ সত্য তাহার উপরে নাই ভাব সম্প্রসারণ - ২

মূলভাব : বর্তমান পৃথিবীতে শ্রেণি বৈষম্য প্রকট আকার ধারণ করেছে। কিন্তু এই শ্রেণি বৈষম্যের ঊর্ধ্বে মানুষের স্থান ।

সম্প্রসারিত ভাব : চিন্তায়, কাজে, বিবেক-বুদ্ধিতে, হৃদয়-ধর্মে ও সৌন্দর্যবোধে পৃথিবীতে মানুষের শ্রেষ্ঠত্ব প্রশংসার দাবিদার। এই বৈশিষ্ট্যের কারণে বিশ্বের মানব সমাজ এক অভিন্ন পরিবারভুক্ত। কিন্তু দুভার্গ্যক্রমে স্বার্থান্বেষী ও ক্ষমতালোভী কিছু মানুষ ধর্ম, বর্ণ ও সম্প্রদায়গত পার্থক্য উসকে দিয়ে মানুষের সম্প্রীতির বন্ধন ছিন্ন-ভিন্ন করতে চায়। মানুষের আসল পরিচয় তার মনুষ্যত্বে, তার সবচেয়ে বড় ধর্ম মানব ধর্ম । 

সভ্যতা নির্মাণ করতে গিয়ে মানুষের জ্ঞান, বুদ্ধি, শ্রম ও কৌশলের কাছে প্রকৃতি পদানত হয়েছে। শিল্প, সাহিত্য, জ্ঞান, বিজ্ঞান, দর্শন ও প্রযুক্তিতে একের পর এক সাফল্য অর্জন করে মানুষ তার শ্রেষ্ঠত্ব প্রমাণ করেছে। এই শ্রেষ্ঠত্বের দাবিদার কোনো একক মানুষ নয়, সমগ্র মানব সত্তা। দেশে দেশে কালে কালে মহা মানবরা সেই মানবতার জয়গানেই মুখর হয়েছেন। মানুষের মধ্যে ছোট বড় ভেদ থাকা অর্থহীন। মানুষকে তার স্বমহিমায় ভাস্বর হতে হলে মানবতার পথের পথিক হতে হবে।

মন্তব্য : সভ্যতার নির্মাণ কোনো সম্প্রদায়ের একক প্রচেষ্টায় সম্ভব হয়নি। তাই সকলের কণ্ঠে বিশ্ব মানবতার জয়গান ধ্বনিত হওয়াই বাঞ্ছনীয় ।

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

শিক্ষাগার ওয়েবসাইটের নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url