রচনা : জাতীয় পাখি দোয়েল (ক্লাস ৩, ৪, ৫)

জাতীয় পাখি দোয়েল রচনা - ১

সূচনা: 

সবুজ শ্যামল বাংলাদেশে বহু ধরনের পাখি দেখা যায়। বিচিত্র রঙের ও গড়নের পাখিরা আমাদের প্রকৃতিকে সমৃদ্ধ করেছে। এর মধ্যে সুদর্শন ও সুকণ্ঠের অধিকারী দোয়েল আমাদের জাতীয় পাখি । 

আকৃতি: 

দোয়েল ছোট্ট ধরনের পাখি। এটি আকারে ছয় ইঞ্চি পর্যন্ত লম্বা হতে পারে। এর পা দুটি সরু। চোখ মায়াবী এবং ঠোঁট বাঁকা ও সরু। গায়ের রং সাদা ও কালোতে মেশানো । স্ত্রী দোয়েলের রং গাঢ় ধূসর ধরনের হয়।

প্রকৃতি: 

দোয়েল বাংলাদেশের গানের পাখি নামে পরিচিত। এর গানের গলা খুবই মিষ্টি। দোয়েল অন্য পাখির গানের অনুকরণও করে। এটি শান্ত প্রকৃতির পাখি ।

বাসস্থান: 

গাছপালা ঘেরা স্থান বা অগভীর বনে দোয়েল একা বা জোড়ায় থাকে। একেবারে খোলামেলা জায়গায় এ পাখি থাকে না। তবে মানুষের কাছাকাছি থাকতে পছন্দ করে। গ্রাম হলে দোয়েল বাড়ির আঙিনার কাছাকাছি ঝোপ-ঝাড় ও গাছের ডালে বিচরণ করতে পছন্দ করে ।

আরও পড়ুন :- বাংলাদেশের জাতীয় মাছ - ইলিশ রচনা : Class 3, 4, 5

খাদ্য: 

কীটপতঙ্গই দোয়েলের প্রধান খাবার। ঘাসের ওপর ছড়ানো শস্যকণা বা ছোট পোকামাকড় খেয়ে এরা জীবনধারণ করে। আঙিনায় পড়ে থাকা উচ্ছিষ্ট খাবার ও শস্যদানাও খায় দোয়েল। তবে ছোটাছুটি আর গান নিয়েই যেন এরা বেশি ব্যস্ত থাকে ।

বংশবিস্তার: 

বছরের একটি সময় স্ত্রী-দোয়েল তিন থেকে পাঁচটি ডিম পাড়ে। ডিম ফুটে বাচ্চা হলে দোয়েল তাদের লালনপালন করে বড় করে তোলে।

উপসংহার: 

দোয়েল আকারে ছোট হলেও এর চকচকে সাদা-কালো শরীর ও গড়নটি বেশ আকর্ষণীয়। রূপ ও সুন্দর কণ্ঠের বদৌলতেই দোয়েল আমাদের জাতীয় পাখির মর্যাদা পেয়েছে ।

জাতীয় পাখি দোয়েল রচনা - ২

সূচনা :- 

আকারে ছোট হলেও দোয়েল পাখি দেখতে খুবই সুন্দর ও আকর্ষণীয়। তাই বাংলাদেশে অসংখ্য পাখির মধ্যে দোয়েল আমাদের জাতীয় পাখির মর্যাদা পেয়েছে।

স্বভাব :- 

দোয়েল ছোট পাখি। এরা খুব পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন থাকে। এরা দিনে কয়েকবার গোসল করে থাকে। লেজ প্রায় সব সময়ই উঁচু থাকে। এরা যখন গান গায় তখন এদের লেজ থাকে ঝুলানো আর লেজের পাখনাগুলো থাকে কিছুটা প্রসারিত।

গানের পাখি :- 

আকারে ছোট হলেও দোয়েল পাখির গান বড় মিষ্টি। এদের গান শুনলে মন আনন্দে মেতে ওঠে, প্রাণ জুড়িয়ে যায়। এ মনমাতানো প্রাণজুড়ানো গানের জন্যই দোয়েলকে বলা হয় গানের পাখি। এরা বসন্তকালে বেশ আনন্দে মেতে ওঠে। গরমের দিনে এরা বাড়িঘরের আশেপাশে বসে মনের সুখে গান গায়। দোয়েল পাখি অন্য পাখির গানও অনুকরণ করে।

আরও পড়ুন :- জাতীয় ফুল শাপলা - রচনা Class 1, 2, 3, 4, 5

খাদ্য :- 

বিভিন্ন প্রকার কীটপতঙ্গই দোয়েল পাখির প্রধান খাদ্য। তাছাড়া নরম মাটিতে ঠোঁট দিয়ে খুঁচিয়ে কেঁচো উঠিয়ে এরা আহার করে থাকে । কীটপতঙ্গের মধ্যে তেলাপোকা দোয়েল পাখির সবচেয়ে প্রিয় খাবার ।

বাসস্থান :- 

দোয়েল পাখি অগভীর জঙ্গলে একা বা জোড়াসহ থাকে। মানুষের কাছাকাছি থাকেই এরা বেশি পছন্দ করে। এরা ভালো করে বাসা বাঁধতে পারে না। তাই গাছের গুঁড়ির ফাঁকের মধ্যেই বেশি বসবাস করে থাকে। তাছাড়া পরিত্যক্ত লাইটপোষ্টের মাথায় ঘাস, শিকড়, চুল ইত্যাদি বিছিয়ে দোয়েল পাখি বাসা বেঁধে।

উপসংহার :- 

বাংলার সবুজ প্রকৃতির সঙ্গে এ গানের পাখিটি যেন অভিন্ন হয়ে আছে। এজন্যই দোয়েল আমাদের জাতীয় পাখি ।

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

শিক্ষাগার ওয়েবসাইটের নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url