ভাবসম্প্রসারণ : নানান দেশের নানান ভাষা বিনা স্বদেশী ভাষা মিটে কি আশা

মূলভাব : প্রত্যেক মানুষই তার মাতৃভাষায় কথা বলেই বেশি তৃপ্তি লাভ করে। কেননা, মাতৃভাষায় যেমন পরিপূর্ণভাবে মনের ভাব প্রকাশ করা যায় তেমনটা অন্য ভাষায় করা যায় না ।

সম্প্রসারিত ভাব : পৃথিবীতে বহু রকম ভাষা রয়েছে। পৃথিবীর সকল জাতির জন্যেই নির্দিষ্ট মাতৃভাষা বিদ্যমান । মাতৃভাষা ছাড়া অন্য কোনো ভাষাতেই মনের ভাব প্রকাশ করে পরিতৃপ্তি পাওয়া যায় না। বিদেশি ভাষায় দক্ষতা অর্জন করা সম্ভব হলেও মাতৃভাষার মতো অন্য ভাষায় চিন্তাচেতনা সাবলীলভাবে ব্যক্ত করা যায় না। কারণ বাল্যকাল থেকেই মানুষ মাতৃভাষা আয়ত্ত করে, এটা তার কাছে মায়ের মতো আপন হয়ে ওঠে। তাই মানুষের কথা বলার ও মনের ভাব প্রকাশের সর্বোত্তম বাহন মাতৃভাষা। পৃথিবীর প্রত্যেক জাতির মাতৃভাষার আলাদা বৈশিষ্ট্য রয়েছে। 

যে জাতি শিক্ষা দীক্ষা, জ্ঞান চর্চা, গবেষণার কাজে মাতৃভাষার যত বেশি চর্চা করেছে সে জাতি তত বেশি উন্নত হয়েছে। অনেক কবি সাহিত্যিক জীবনের শুরুতে অন্যভাষায় সাহিত্য চর্চা করলেও পরবর্তীতে ভুল ভেঙে যাওয়ায় তারা মাতৃভাষায় সাহিত্য চর্চায় মনোনিবেশ করে খ্যাতি অর্জন করেছেন। পৃথিবীর বিদ্বান ও জ্ঞানী ব্যক্তিরা বিভিন্ন ভাষা শেখেন, সাধনা করেন। জ্ঞানের চর্চা করেন কিন্তু অর্জিত সাধনার ফল প্রকাশ করেন মাতৃভাষায়। কেননা তাঁরা মনের ভাব বা চিন্তা চেতনা অন্য ভাষা প্রকাশ ঘটিয়ে তিনি তৃপ্ত হন না।

মন্তব্য : আমাদের আশা-আকাঙ্ক্ষা, চিন্তা-চেতনার সফল প্রকাশ ঘটে মাতৃভাষার মাধ্যমে। তাছাড়া মাতৃভাষা ভালোভাবে না জানলে অন্য ভাষাতেও দক্ষতা অর্জন করা যায় না। তাই প্রত্যেকের কাছে মাতৃভাষার এতো গুরুত্ব।

আরও পড়ুন :- ভাব সম্প্রসারণ :- পিতা মাতা গুরুজনে দেবতুল্য জানি 

এই ভাবসম্প্রসারণ টি অন্য আর ১টি বই থেকে সংগ্রহ করে দেওয়া হলো 

মূলভাব : পৃথিবীতে যত ভাষা আছে, তার মধ্যে মাতৃভাষাই প্রধান। মাতৃভাষা ছাড়া যেন মনের কোনো ক্ষুধাই মেটে না ৷ 

সম্প্রসারিত ভাব : পৃথিবীতে হাজারো রকমের মানুষ ও জাতি রয়েছে। তেমনি তাদের ভাষাও হাজারো রকম। এক এক দেশের লোকের ভাষা এক এক রকম। এক দেশের লোক অন্য দেশের ভাষা বুঝে না। কোনো কোনো সময় নিজের ভাষা ছাড়াও অন্য একাধিক ভাষার চর্চা করে আয়ত্ত করলেও তাতে কথা বলার বা জানার পূর্ণ তৃপ্তি সাধিত হয় না। মানুষ মাত্রেই তার নিজস্ব মাতৃভাষায় মনের ভাব প্রকাশ করে সবচেয়ে বেশি তৃপ্তিলাভ করে থাকে। কারণ মাতৃভাষা যত সহজ বোধগম্য, অন্য কোনো ভাষা তা নয়। পরিপূর্ণভাবে মনের ভাব প্রকাশের একমাত্র মাধ্যম মাতৃভাষা। মাতৃভাষাকে আত্মস্থ করতে বিশেষ কোনো প্রক্রিয়ার প্রয়োজন হয় না। জন্মের পর থেকেই শিশু তার নিজ পরিবেশ থেকে এ ভাষা আয়ত্ত করে থাকে।

আমরা বাংলাদেশের অধিবাসী। বাংলা আমাদের মাতৃভাষা। আমাদের মুখে প্রথম বুলি ফোটে মাতৃভাষায় ‘মা’ ডাকের মাধ্যমে। মাতৃভাষা বাংলার সাথে আমাদের ভাব সহজ, অন্তরঙ্গ এবং প্রগাঢ়। আমাদের সুখ-দুঃখ, হাসি-কান্না, আবেগ-অনুভূতি সবই ঐকান্তিক-ভাবে প্রকাশ করে থাকি মাতৃভাষা বাংলার মাধ্যমে। আমাদের আশা-আকাঙ্ক্ষা বিমূর্ত চিন্তা ও চেতনা মূর্ততা লাভ করে মাতৃভাষার মাধ্যমেই। বাংলাভাষা তাই আমাদের নিকট এত প্রিয়। আমরা আমাদের ভাষাকে মায়ের মতো ভালোবাসি।

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

শিক্ষাগার ওয়েবসাইটের নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url